কীভাবে ব্রণ সারাতে কাজে লাগাবেন হলুদ? রইল তিনটি অব্যর্থ ফেসপ্যাকের সন্ধান

কীভাবে ব্রণ সারাতে কাজে লাগাবেন হলুদ? রইল তিনটি অব্যর্থ ফেসপ্যাকের সন্ধান

ব্রন এর সমস্যা একটি অতি পরিচিত সমস্যা। মুখ ভর্তি ব্রন থাকাতে আপনি অনেক চিন্তিত। অনেক কিছুই ব্যাবহার করেছেন কিন্তু ফলাফল শূন্য। এবার কাজে লাগান এই ফেস প্যাঁক গুলি।

প্রাচীন ভারতীয় আয়ুর্বেদে হলুদ চিরকালই দারুণ সমাদৃত। হলুদের অ্যান্টিসেপটিক গুণের যেমন কদর রয়েছে, তেমনি রূপচর্চার অঙ্গ হিসেবেও হলুদের ব্যবহার বহুল প্রচলিত। আর এই দুটি গুণকে যদি এক জায়গায় নিয়ে আসা যায়, তা হলেই আপনি পেয়ে যাবেন ব্রণর মহৌষধ!

যাঁদের এমনিতেই ব্রণর ধাত, তাঁরা হলুদ ব্যবহার করলে রাতারাতি ফল পাবেন। ব্রণ তো বিদায় হবেই, দাগেরও চিহ্ন থাকবে না! তাই আপনাদের জন্য রইলো ৩ টি হলুদের ফেস প্যাঁক।

হলুদ, মধু আর লেবুর প্যাক

বাটিতে দু’ টেবিলচামচ মধু নিন, তাতে আধ চাচামচ কাঁচা হলুদবাটা আর এক চাচামচ লেবুর রস যোগ করুন। ভালো করে মিশিয়ে মুখে লাগান। 15 মিনিট রেখে ধুয়ে ফেলুন। হলুদ ব্রণ কমাবে, মধু ত্বক আর্দ্র রাখবে আর লেবুর রস সমস্ত দাগছোপ মুছে ত্বক করে তুলবে ঝকঝকে মসৃণ। সপ্তাহে একদিন ব্যবহার করলেই ফল পাবেন।

হলুদ, কফি আর টকদইয়ের প্যাক

এক টেবিলচামচ কফির গুঁড়োয় খানিকটা টকদই আর এক চাচামচ কাঁচা হলুদবাটা যোগ করে ভালো করে মিশিয়ে নিন। মুখে লাগিয়ে 20 মিনিট রাখুন। তারপর হালকা গরম জলে ধুয়ে ময়শ্চারাইজ়ার লাগিয়ে নিন। টকদই সেবাম নিয়ন্ত্রণ করে মুখের বাড়তি তেলাভাব কমিয়ে দেবে, ফলে ব্রণও নিয়ন্ত্রণে থাকবে। কফির গুঁড়ো ত্বক এক্সফোলিয়েট করবে আর হলুদ রুখে দেবে ব্রণর বাড়বৃদ্ধি আর সংক্রমণ।

হলুদ আর অ্যালো ভেরার প্যাক

দু’ চামচ টাটকা অ্যালো ভেরা জেল নিয়ে তাতে এক চিমটি হলুদ মিশিয়ে ভালো করে ফেটিয়ে পেস্ট বানিয়ে নিন। মুখে প্যাকটা লাগিয়ে 15-20 মিনিট রাখুন। তারপর মুখ ধুয়ে ময়শ্চারাইজ়ার লাগিয়ে নিন। অ্যালো ভেরা আর হলুদ একসঙ্গে আপনার মুখ থেকে ব্রণ তাড়াবে, ত্বক হয়ে উঠবে দাগমুক্ত, কোমল আর ঝকঝকে!

Spread the love