পেঁয়াজ-রসুন ছাড়া মাটন রান্না, জিভে-জল আনা স্বাদ

পেঁয়াজ-রসুন ছাড়া মাটন রান্না, জিভে-জল আনা স্বাদ

সম্প্রতি পেঁয়াজের দাম বাড়ায় বিপদে পড়েছেন বাড়ির গৃহিনীরা। সাধ থাকলেও হয়তো অনেক সময় ভালো কিছু রেঁধে খাওয়াতে পারছেন না প্রিয়জনদের। সাধ্যে কুলাচ্ছে না পেঁয়াজের যথেচ্ছ ব্যবহার।

অনেকেরই ধারণা, পেঁয়াজ-রসুন ছাড়া মাছ-মাংস রান্না করা একদমই অসম্ভব। কিন্তু সে ধারণা ঠিক নয়। আজকের রেসিপিতে থাকছে পেঁয়াজ-রসুন ছাড়াই মাংস রান্নার সমাধান।

‘কাশ্মীরি মাটন’ ভোজনরসিকদের কাছে অত্যন্ত জনপ্রিয়। এই রেসিপিটিকে ‘মাটন রোগানজোস’-ও বলা হয়। কাশ্মীরি মশলা ও মরিচের ঝাঁজে রেসিপিটি তৈরি হবে পেঁয়াজ রসুন ছাড়াই।

কাশ্মীরি এই পদটির আগমন মোগলদের হাত ধরে। গরম ভাত বা নানের সঙ্গে লা-জবাব এই রেসিপি।


চলুন তবে জেনে নেয়া যাক রেসিপিটি:

উপকরণ:
মাটন ১ কেজি
সরিষার তেল ৪ টেবিল চামচ
ছোট এলাচ ৪/৫ টি
দারচিনি ২/৩ টি
লবঙ্গ ৫/৬ টি
বড় এলাচ ২টি
তেজপাতা ২/৩ টি
টকদই ১ কাপ
হিং ১ চা চামচ
কাশ্মীরি মরিচ গুড়া ২ টেবিল চামচ
শুকনা মরিচ গুড়া ১ টেবিল চামচ
মৌরি গুড়া ১ টেবিল চামচ
শুকনা আদা গুড়া ১ টেবিল চামচ
ধনে গুড়া ১ টেবিল চামচ
লবণ স্বাদ মতো
গরম মশলা গুড়া ১ টেবিল চামচ
রতনযোগ পরিমাণ মতো (রংয়ের জন্য)

  • প্রেসার কুকারে সরিষার তেল ঢেলে ধোঁয়া ওঠা পর্যন্ত গরম করুন। তারপর কুকারটি গ্যাস থেকে নামিয়ে রেখে সমস্ত গোটা মশলার ফোড়ন দিন।
  • পুনরায় কুকারটি গ্যাসে চড়ান। এরপর সেদ্ধ করে রাখা মাটন দিয়ে কিছুক্ষণ নাড়াচাড়া করুন।
  • মাটন হালকা ভাজা হয়ে গেলে তাতে ফেটানো টক দই দিন।
  • এরপর একে একে সব গুঁড়া মশলা যোগ করে অল্প আঁচে ভাল করে কষান।
  • মশলা থেকে তেল ছেড়ে এলে তাতে গরম পানি মিশিয়ে নাড়াচাড়া করুন।
  • স্বাদ মতো লবণ দিন।
  • গ্রেভির লাল রঙের জন্য যোগ করুন পরিমাণ মতো রতনযোগ।
  • প্রেসার কুকারের ঢাকনা দিয়ে ৩ থেকে ৪ সিটি ওঠা পর্যন্ত অপেক্ষা করুন।
  • সবশেষে গরম মশলার গুঁড়া মিশিয়ে নামিয়ে নিন।

ব্যাস, তৈরি হয়ে গেল সুস্বাদু কাশ্মীরি মাটন। গরম ভাত, পরোটা বা নানরুটির সঙ্গে পরিবেশন করুন।

রেসিপিটি গরুর মাংস, মুরগি বা মাছ দিয়েও ট্রাই করতে পারেন।

Spread the love